[X]
loading...

মেয়েটি ক্লাস ৮ থেকে প্রেম করা শুরু করেছে। ক্লাস ৮ এর প্রেম টায় ক্লাস ফাঁকি দিয়ে বয়ফ্রেন্ডের সাথে

মেয়েটি ক্লাস ৮ থেকে প্রেম করা শুরু
করেছে। ক্লাস ৮ এর প্রেম টায় ক্লাস ফাঁকি
দিয়ে বয়ফ্রেন্ডের সাথে ঘুরতে যেয়ে হাত
ধরাধরি আর সুযোগ পেলে জড়িয়ে ধরা ।
.
ক্লাস ৯-১০ এ আরেকটা ছেলের সাথে
তার রিলেশন যে কিনা 'হাত
ধরাধরি, জড়িয়ে ধরা, কিস'।
আর বিশেষ কোনো দিনে আবদার করে বসল
'জান আমি তোমাকে আরো কাছের করে
পেতে চাই' মেয়েটি না করতে পারল না।
তারও অনেক দিনের শখ পূরণ হলো
শারীরিক
সম্পর্কের মাধ্যমে। এস.এস.সি দিবে তাই
পড়ার
চাপে
রিলেশন কন্টিনিউ করতে পারল না
.
১০ পাশ করে কলেজে। চারিদিকে নতুন নতুন
মানুষ। তাদের মধ্যে কিছু বাইক ওয়ালা
মানুষ
তার পিছে ঘুরে। সেই পিছে পিছে ঘুরা
বাইক
ওয়ালাদের মধ্যে একটা বাইক ওয়ালা তার
বয়ফ্রেন্ড হয়ে গেল। যে রিলেশনের ৩ মাস
পরেই
তাকে লিটনের ফ্ল্যাট চিনিয়ে দিল। এরপর
সেক্স একটা নেশায় পরিণত হয়ে গেল
মেয়েটির। ছেলেটি
যতবার চায় সে ততবার নিজেকে বিলিয়ে
দেয়

.
কলেজের ২য় বছর ভার্সিটির এক বড় ভাই
তাকে এতটাই পটিয়েছে যে, মেয়েটা সব
রিলেশন বাদ দিয়ে তার সাথে রিলেশন শুরু
করে। বড়
ভাই নিজস্ব ফ্লাটে থাকে। মেয়েটি
যখন ইচ্ছা তখন তার ফ্লাটে যায়।
সেখানে কি করা হয় নতুন করে না বললাম।
রিলেশন ৩ বছর আর মেয়েটি এখন অনার্স ২য়
বর্ষে। এর
মধ্যে সে কত বার ফ্লাটে গেছে অজানা
রয়ে
গেল
.
মেয়েটির বাসা থেকে বিয়ের চাপ
দেওয়ায় সে ভার্সিটির বয়ফ্রেন্ডকে বলে
তাকে বিয়ে করতে। সে বলে আমি এখন
বিয়ে
করতে পারব না কারন তার পড়ালেখা শেষ
হয়নি , চাকরিও করেনা। ব্যাস রিলেশনের
খতম
এখানেই। মেয়ে বিয়ের জন্য
রাজি হয়ে গেল। সুন্দর দেখে একটা
ছেলের সাথে বিয়ে হলো পারিবারিক
ভাবে
। মেয়ে, তুমি তোমার বরের জন্য কি
রেখেছো-? তোমার শরীর তোমার বরের
আমানত ছিল যা তুমি কুত্তা
দিয়ে ভোগ করিয়েছো। এহকালেও মাফ
পাবা
না , আর পরকালের টা জমা থাক''
বিদ্রঃ বাক্যগুলো উপরে উল্লেখিত
চরিত্রের মেয়েদের জন্য । ভাল মেয়েদের
সালাম জানাই। সবাই এক না।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

অফিস ॥ ৯২ আরামবাগ, ক্লাব মার্কেট, মতিঝিল। ই-মেইল ॥ banglaonlinetvnews@gmail.com
প্রকাশক মোঃ রাসেল জাতীয় মানবাধিকার ইউনিটি রেজিঃ নং: ঢ_০৮৮৩৭
অনলাইন নিতীমালা মেনে আবেদন কৃত সম্পাদক॥ রাজু আহমেদ অনুমোদিত নাম্বার ০৫/৯৩১৭০২৬৫