[X]

ওরা ভেবেছিল বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করতে পারলেই বাংলাদেশের রাজত্ব নিয়ে লুটপাট করে খাওয়া যাবে

শরিফুল ইসলাম, বেনাপোল প্রতিনিধি : ৮৫ যশোর ১(শার্শা)’র সাংসদ আলহাজ্ব শেখ আফিল উদ্দিন বলেন ওরা ভেবেছিল বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করতে পারলেই বাংলাদেশের রাজত্ব নিয়ে লুটপাট করে খাওয়া যাবে। তাই তারা ১৯৭৫ সালের ১৫-ই আগষ্ট জাতির জনককে নির্মমভাবে হত্যা করেছিল। সেদিন বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেই ওরা শান্ত হয়নি, হত্যা করেছিল বঙ্গবন্ধুর পরিবারের সকল সদস্যসহ নিকটাত্মীয়দের। বাদ দেয়নি জাতির জনকের শিশু পুত্র শেখ রাসেলকেও। সেদিন ছোট্র শিশু রাসেল বার বার তার মায়ের কাছে যেতে চেয়েছিল কিন্তু পাষন্ডরা বুঝেছিল একে বাঁচিয়ে রাখলে একদিন সে তার বাবা হত্যার প্রতিশোধ নেবে। তাই তারা নির্মমভাবে হত্যা করে শেখ রাসেলকেও। শোকাবহ ১৫ ই আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর ৪৩ তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধাণ অতিথি হিসেবে একথা বলেন তিনি।

নিজামপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের আয়োজনে অনুষ্ঠিত উক্ত অনুষ্ঠানে শেখ আফিল উদ্দিন এমপি আরো বলেন, “রাখে আল্লাহ” মারে কে? মহান সৃষ্টিকর্তার অশেষ মেহেরবানিতে বিদেশ থাকার উছিলায় সেদিন নর ঘাতকদের ছোবল থেকে বেঁচে গিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু কণ্যা তথা আজকের লাল সবুজের পতাকার কর্ণধর প্রধাণ মন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তাঁর বোন শেখ রেহনা। যিনি তার একমাত্র সম্পদ সততা দিয়ে আজ কেবল বাংলাদেশের প্রধাণ মন্ত্রী নয়, তিনি আজ সারা বিশ^ নেত্রী। যার সততা, কর্মদক্ষতা, মানবিকতা ও বাবার আর্শিবাদ তাঁকে পৌছে দিয়েছেন দেশ থেকে বিশ^ নেতা’য়। 

নিজামপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল ওহাবের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত অনুষ্ঠানে সাংসদ শেখ আফিল উদ্দিন দলীয় নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্য করে আরো বলেন, আর মাত্র কয়েক মাস বাকি জাতীয় নির্বাচনের। তাই, এখন থেকেই ভোটরদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে আমাদেরকে নৌকার জন্য ভোট চাইতে হবে। জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য ভোট চাইতে হবে। শেখ হাসিনাকে আবারো বাংলাদেশের প্রধাণ মন্ত্রী নির্বাচিত করতে হবে। কারণ ঐ হায়েনার দল এখনো সমাজে বিদ্যমান। ওরা সুযোগ পেলে আবারো প্রধাণ মন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ক্ষতি করবে। সেসাথে পূর্ববর্তী সময়ের ন্যায় আওয়ামীলীগ নেতা-কর্মীদের জান মালের ক্ষতি করবে। তাই, নিজেদের তাগিদেই দলীয় সকল ভেদাভেদ ভূলে সকলকে একযোগে নৌকার জন্য কাজ করে আওয়ামীলীগকে পূণরায় ক্ষমতায় প্রতিষ্ঠিত করতে হবে। 

এসময় বিষেশ অতিথি হিসেবে আরো বক্তব্য রাখেন শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল হক মঞ্জু, সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও যশোার জেলা পরিষদের সদস্যা অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল, শার্শা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফফর হোসেন, যুবলীগের সভপতি ও যশোর জেলা পরিষদের সদস্য অহিদুজ্জামান অহিদ, সাধারণ সম্পাদক ও শার্শা সদর ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান, ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুর রহিম সরদার ও নিজামপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আযাদ।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক কোষাধ্যক্ষ ওয়াহিদুজ্জামান, ডিহি ইউপি চেয়ারম্যান হোসেন আলী, লক্ষণপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক চেয়ারম্যান কামাল হোসেন, বাহাদুরপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, বেনাপোল পৌর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক মহাতাব উদ্দিন, নিজামপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম, যুবলীগের সভাপতি আলাউদ্দিন খানসহ স্থানীয় আওয়ামীলীগের সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা।

আলোচনা শেষে বঙ্গবন্ধুর পরিবারের জন্য দোয়া ও খাদ্য বিতরণ করা হয়।

No comments:

Post a Comment

অফিস ॥ ৯২ আরামবাগ, ক্লাব মার্কেট, মতিঝিল। ই-মেইল ॥ banglaonlinetv24@gmail.com
প্রকাশক মোঃ রাসেল জাতীয় মানবাধিকার ইউনিটি রেজিঃ নং: ঢ_০৮৮৩৭
অনলাইন নিতীমালা মেনে আবেদন কৃত সম্পাদক॥ রাজু আহমেদ অনুমোদিত নাম্বার ০৫/৯৩১৭০২৬৫