[X]

বঙ্গবন্ধুর ডাকে বাঙালী জাতি ধর্মভেদ ভুলে শত্রুদের মোকাবেলা করে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন ---- শেখ আফিল উদ্দিন এমপি

সাহাবুদ্দিন আহম্মেদ বেনাপোল : সংসদ সদস্য আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন বলেন, সোনাতন ধর্মের মানুষ প্রতিবারের ন্যায়  এবারো প্রাণ খুলে সারদীয় দূর্গাৎসব পালন করছেন, যা প্রধাণ মন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ দেশনেতৃত্বের কারণেই সম্ভব হচ্ছে। এক সময়ে এদেশ পরাধীনতার শিকলে বাধাছিল। বিদেশি শক্তিরা চেয়েছিল সাম্প্রদায়িক চেতনায় বাঙালী জাতিকে লন্ডভন্ড করে এদেশটাকে লুটেপুটে খেতে হবে। কিন্তু জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিদেশিদের কাছে মাথানত করেননি। তিনি হিন্দু, মুসলিম, বৈদ্ধ, খ্রিষ্টানসহ সকল ধর্মবলম্বীদের সঙ্গে নিয়ে একটি অসাম্প্রদায়িক দেশ গড়ার লক্ষ্যে স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলেন। সেদিন বঙ্গবন্ধুর ডাকে বাঙালী জাতি ধর্মভেদ ভুলে শত্রুদের মোকাবেলা করে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। বুধবার বিকেলে উত্তর শার্শার বসন্তপুর, গোড়পাড়া, শাখারীপোতা, বেনাপোল পাঠবাড়ী, ছোট আঁচড়া, কাগজপুকুর, শার্শা জেলেপাড়া ও নাভারন উত্তর বুরুজ বাগান পূজা মন্ডপ পরিদর্শনকালে একথা বলেন তিনি।

এসময় শেখ আফিল উদ্দিন এমপি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু এদেশকে ভাল বাসতেন তাই তিনি এদেশের মানুষকে পরাধীনতা থেকে বের করে একটি অসাম্প্রদায়িক দেশ গড়তে স”েষ্ট ছিলেন। কিন্তু দেশের মধ্যে লুকিয়ে থাকা পরাজিত শত্রুরা তা মেনে নিতে পারেনি। তাই তারা জাতির জনকের হত্যার মধ্য দিয়ে আবারো ফায়দা লুটার ”েষ্টায় মরিয়া হয়ে ওঠে। দীর্ঘকাল পাড়ি দিয়ে হলেও বঙ্গবন্ধুর আদর্শের দলটি নৌকা প্রতিক নিয়ে হাটি হাটি পা পা করে আবারো সকল ষঢ়যন্ত্রকে রুখে দিয়ে এদেশের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আসে। যার নেতৃত্ব দিচ্ছেন জাতির জনকের কণ্যা প্রধাণ মন্ত্রী শেখ হাসিনা। দেশ যখন সকল ধর্মাবলম্বীদের সাথে নিয়ে “ধর্ম যার যার” “উৎসব সবার” এ স্লোগানে এগিয়ে যাচ্ছে ঠিক তখনই সেসকল চক্রান্তকারিরা আবারো দেশের মধ্যে বিভিন্ন বিভেদ তৈরি করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। তারা চাইছে কিভাবে অন্ধকার পথ দিয়ে এদেশের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আসা যায়। এজন্য আমাদের সকলের ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। যাতে চক্রান্তকারীরা কোনরুপ সুযোগ না পায়।

এ সময় তিনি অসাম্প্রদায়িক চেতনা ধরে রাখতে আগামী জাতীয় নির্বাচনে উন্নয়নের প্রতীক নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে শেখ হাসিনাকে আবারো রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় নেওয়ার আহবান জানান।

উক্ত সারদীয় দূর্গাৎসব পরিদর্শণকালে শেখ আফিল উদ্দিন এমপি’র সফর সঙ্গী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল হক মঞ্জু, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব নুরুজ্জামান, সাংগঠনিক সম্পাদক ও যশোর জেলা পরিষদের সদস্য অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও যশোর জেলা পরিষদের সদস্য অহিদুজ্জামান অহিদ, সাংগঠনিক সম্পাদক ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফফর হোসেন, শার্শা উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি শান্তি বিশ^াষ, সহ সভাপতি নীল কমল, তাপস কুমার বিশ^াষ, সাধারণ সম্পাদক বৈদ্যনাথ দাস, উপজেলা যুবলীগ নেতা জাহাঙ্গীর হোসেন, ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুর রহিম সরদারসহ আওয়ামীলীগের বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা।

বিভিন্ন পূজা মন্ডপে উপস্থিত ছিলেন  নিজামপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আযাদ, নিজামপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল ওহাব, সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন তরফদার, বাহাদুরপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, বেনাপোল ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ¦ বজলুর রহমান, বেনাপোল পৌর আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলহাজ¦ এনামুল হক মুকুল, সহ সভাপতি আলী কদর সাগর, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ¦ নাসির উদ্দিন, যুগ্ম সম্পাদক মহাতাব উদ্দিন, প্রচার সম্পাদক আকবার আলী, পৌর সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি জুলফিকার আলী মন্টু, সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন, ছাত্রলীগের সভাপতি আল মামুন জোয়াদ্দার, সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুর রহমানসহ স্থানীয় আওয়ামীলীগের সকল অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা। 

 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

অফিস ॥ ৯২ আরামবাগ, ক্লাব মার্কেট, মতিঝিল। ই-মেইল ॥ banglaonlinetv24@gmail.com
প্রকাশক মোঃ রাসেল জাতীয় মানবাধিকার ইউনিটি রেজিঃ নং: ঢ_০৮৮৩৭
অনলাইন নিতীমালা মেনে আবেদন কৃত সম্পাদক॥ রাজু আহমেদ অনুমোদিত নাম্বার ০৫/৯৩১৭০২৬৫