[X]

বেনাপোল বন্দর মিথ্যা ঘোষনা দিয়ে আমদানীকৃত মোটর পার্টসসহ ভারতীয় ট্রাক জব্দ


সাহাবুদ্দিন্ আহম্মেদ,বেনাপোল : মিথ্যা ঘোষনা দিয়ে ভারত থেকে আমদানীকৃত  একটি পণ্য চালান (ভারতীয় ট্রাকসহ) বেনাপোল বন্দরের বড় আঁচড়া এলাকা থেকে  জব্দ করেছে কাষ্টমস্ কর্তৃপক্ষ।  জব্দকৃত পণ্য চালানটির আমদানীকারক ছিলেন ঢাকার  এপেকস্ ফুট ওয়ার লিমিেিটড। যার মেনিফেষ্ট নং ৩৫৪৮৯/১, তাং-৩০.৯.১৮,। পণ্য চালানটির রপ্তানী কারক প্রতিষ্ঠান ভারতের চন্দ্রা কেমিকেল এন্টারপ্রাইজ প্রা; লিমিটেড। আমদানীকারক প্রতিষ্ঠান গত ২০ সেপ্টম্বর-২০১৮ ব্যাংক এশিয়ায় একটি এলসি খোলেন পণ্যটি আমদানী করার জন্য। যার এলসি নং ২০৮২১৮০২০৪৫৩।   পণ্য চালানটির  ইনভয়েজ মুল্য দেখানো হয়েছে ২৫৯৬০ মার্কিন ডলার।  বেনাপোল  কাষ্টমস হাউসের ইনভেষ্টিগেশন রিসার্স এন্ড ম্যানেজমেন্ট গ্রুপের একটি  প্রতিনিধি দল জব্দকৃত মালামাল পরিক্ষন করেছেন। পরীক্ষনে পণ্যচালানটির মালামাল ঘোষনায় ছিলো শর্ত সাপেক্ষ আমদানীকৃত লেদার এন্ড ফুট ওয়ার ইন্ডাষ্ট্রিজ এ ব্যবহারের কাঁচা মাল। কিন্তু পরীক্ষনকালে পাওয়া যায় ৭ প্যাকেজ মোটর পার্টস। যা বানিজ্যকভাবে আমদানীযোগ্য।

বেনাপোল কাষ্টম হাউসের সহকারী কমিশনার উত্তম চাকমা জানান গোপন সুত্রে সংবাদ পায়  একজন আমদানীকারক ভারত থেকে মিথ্যা ঘোষনার মাধ্যমে একটি পণ্য চালান বেনাপোল বন্দরে নিয়ে আসছে। এমন সংবাদে সোমবার সকালে  বন্দরের বড় আঁচড়া এলাকা থেকে পণ্য বোঝাই একটি ভারতীয় ট্রাক জব্দ করি। যার নং ডই২৩-ই-৬৩৯৬
পরে ট্রাকটি বেনাপোল কাষ্টম হাউসে নিয়ে আসা হয়। মালামাল  দীর্ঘ সময় পরীক্ষা  করে  মিথ্যা ঘোষনা এবং অমিল পাওয়া যায়।  সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিতে  এমন কাজটি করছিল  এ চক্রটি। তবে ট্রাকটি জব্দ করার সময় মেসার্স আব্দুর রউফ এজেন্সী(প্রা) লিমিটেড নামে একটি ক্লিয়ারিং এজেন্ট এর প্রতিনিধি জব্দকৃত মালামাল নিজেদের দাবী করলেও পরবর্তিতে  তা অস্বীকার করেন। এ ব্যাপারে  বেনাপোল কাষ্টম হাউসে বিষয়টি বিচার প্রক্রিয়াধীন।

 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

অফিস ॥ ৯২ আরামবাগ, ক্লাব মার্কেট, মতিঝিল। ই-মেইল ॥ banglaonlinetv24@gmail.com
প্রকাশক মোঃ রাসেল জাতীয় মানবাধিকার ইউনিটি রেজিঃ নং: ঢ_০৮৮৩৭
অনলাইন নিতীমালা মেনে আবেদন কৃত সম্পাদক॥ রাজু আহমেদ অনুমোদিত নাম্বার ০৫/৯৩১৭০২৬৫