রামগঞ্জে ডিস ব্যবসাকে কেন্দ্র করে একজনকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা


রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি ঃ
লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে ডিস ব্যবসা কেন্দ্র করে ব্যবসায়ী আজাদ হোসেন (২২)কে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে দূর্বৃত্তরা। ঘটনাটি ঘটে শুক্রবার রাত ২টায় কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের নবীগঞ্জ বাজারে । আজাদ শেফালীপাড়া গ্রামের তমুজ উদ্দিন বেপারী বাড়ির আঃ রহিমের ছেলে। সৃষ্ট ঘটনায় রামগঞ্জ থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।
স্থানীয় সূত্র জানায়, উপজেলার নবীগঞ্জ বাজারে পাশ্ববর্তী চৌধুরী বাজারের রিয়োয়ান রিজু র্দীঘদিন যাবত ডিস ব্যবসা করে আসছে। সম্প্রতি ওই বাজারের  জীবন ষ্টোরের মালিক আজাদ ও তার ভাই রিপন  ডিস ব্যবসা করতে চাইলে, রিয়োয়ান রিজু, সেফালী পাড়া  গ্রামের আবদুল করিম ও দিপকের সাথে  আজাদ ও রিপনের সাথে দ্বন্ধ চলে আসছিল। বিষয়টি স্থানীয় চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে দুপক্ষের মধ্যে  শুক্রবার বিকেলে নবীগঞ্জ বাজারে বৈঠক কথা থাকলেও অজ্ঞাত কারনে তা হয়নি। পরে শুক্রবার  গভীর রাতে নবীগঞ্জ বাজারের মেসার্স রিপন ষ্টোরের দরজা ভেঙ্গে ঘুমন্ত অবস্থায় দূর্বৃত্তরা আজাদ হোসেনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি  কুপিয়ে চলে যায়।পরে চিৎকার শুনে পাশ্ববর্তি ব্যবসায়ীরা তাকে উদ্ধার করে রামগঞ্জ সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করে।
আজাদ হোসেনের বড় ভাই মোঃ রিপন হোসেন জানান, নবীগঞ্জ বাজাওে দীর্ঘদিন থেকে চৌধুরী বাজারের ব্যবসায়ী রেজোয়ান রিজু ডিস ব্যবসা করে আসছে।  গত কয়েকমাস আগে আমরা ব্যবসা করতে চাইলে  রেজোয়ান রাজু , দিপক চন্দ্র কর ও আবদুল করীম আমাদেও ব্যবসা করতে দিবে না বলে হুমকি ধমকী দেয়। এ নিয়ে চেয়ারম্যানের নির্দেশে শুক্রবার বিকেলে বৈঠক বসার কথা থাকলে ও তারা না বসে রাতে আধারে আমার ভাই আজাদকে অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা চালায়।
এ ব্যাপারে চৌধুরী বাজারস্থ ডিস ব্যবসায়ী রিজোয়ান রিজু জানান, এ বিষয়ে আমি কিছুই জানি না। সড়ক দূর্ঘটনায় অসুস্থ্য হয়ে এক সপ্তাহ যাবত বাড়িতে আছি। ফেইজবুকে আজাদের উপর হামলার খবর শুনে হাসপাতালে দেখতে এসেছি।
দিপক চন্দ্র কর জানান, আজাদের ভাই রিপনের সাথে শুক্রবার সমাধানের কথা থাকলেও  অজ্ঞাত কারনে তা আর হয়নি। তবে আজাদের উপর কে বা কারা হামলা করেছে তা আমি জানি না। আমরা হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।
স্থানীয় চেয়ারম্যান আবদুল করীম মাষ্টার জানান, ডিস ব্যবসাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটেছে।তারা আমার কাছে আসলে আমি তিনজনকে একসাথে ব্যবসা পরামর্শ দিয়েছি এবং শুক্রবারে বিকেলে তারা নিজেরা বসে সমাধান করার জন্য বলি।   সকালে বিষয়টি জেনে একজন ইউপি সদস্যকে ঘটনাস্থলে পাঠিয়েছি।
রামগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ তোতা মিয়া জানান, আমি ঘটনাটি শুনেছি। মূলত ডিস ব্যবসাকে কেন্দ্র করে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। তদন্ত করে প্রকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

অফিস ॥ ৯২ আরামবাগ, ক্লাব মার্কেট, মতিঝিল। ই-মেইল ॥ banglaonlinetv24@gmail.com
প্রকাশক মোঃ রাসেল জাতীয় মানবাধিকার ইউনিটি রেজিঃ নং: ঢ_০৮৮৩৭
অনলাইন নিতীমালা মেনে আবেদন কৃত সম্পাদক॥ রাজু আহমেদ অনুমোদিত নাম্বার ০৫/৯৩১৭০২৬৫