[X]
loading...

ক্বোরবানী ঈদের পূর্বে বেনাপোল-ঢাকা রেল চলাচল শুরু হবে............. রেল মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন

সাহাবুদ্দিন আহমেদ, বেনাপোল : ঈদুল আযহার পূর্বে বেনাপোল থেকে ঢাকা সরাসরি ট্রেন চলাচল উদ্বোধন করার লক্ষ্যে বেনাপোল রেল স্টেশন ও আর্ন্তজাতিক চেকপোস্ট এলাকা পরিদর্শণ করেছেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। বুধবার (৩ জুলাই) বিকেলে তিনি বেনাপোলে এসে পৌছালে স্থানীয় সাংসদ আলহাজ¦ শেখ আফিল উদ্দিনের পক্ষ্যে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগসহ বেনাপোল পৌর আওয়ামীলীগ ও সকল সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

এরপর মন্ত্রী উপস্থিত জনতার উদ্দেশ্য বলেন, দেশের সার্বিক উন্নয়নের মধ্যে বর্তমান সরকারের রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা একটি গুরুত্বপুর্ন উন্নয়ন। এ উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় বেনাপোল রেল স্টেশনকে আর্ন্তজাতিক মানের স্টেশনের মর্যাদা দিয়ে ক্বোরবানী ঈদের আগে বেনাপোল থেকে ঢাকা পর্যন্ত সরাসরি ননষ্টপ রেল চলাচল চালু হবে। তবে, এটি যশোর ও ঈশ্বরদি সামন্য সময়ের জন্য থামবে। বেনাপোল-ঢাকা চলাচল রেলটি প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্ভবত ২৫ জুলাই আনুষ্ঠানিক ভাবে ভিডিও কনফারেন্সের  মাধ্যেমে উদ্বোধন করবেন। রেলটি নাম এখনও নির্ধারন করা হয়নি। নামটি প্রধানমন্ত্রী ঠিক করবেন। এছাড়া এ রেল পথে ঢাকা থেকে বেনাপোল এর ভাড়া এখনো নির্ধারন করা হয়নি।

তিনি আরো বলেন, বেনাপোল রেল ষ্টেশনের অবকাঠামগত উন্নয়নে খুব দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ ষ্টেশনটিকে আন্তর্জাতিক মানের জংশন হিসেবে তৈরী করারও পরিকল্পনা আছে সরকারের। রেলটিতে ১০ টি বগি থাকবে। এর মধ্যে ২টি কেবিন,  ২টি এসি চেয়ার এবং বাকি গুলো চেয়ার কোচ থাকবে।

এসময় মন্ত্রীর সফর সঙ্গী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রেলের মহাপরিচালক শহীদুল ইসলাম ও রিজিয়ন অফিসার অসিম কুন্ডু।

স্থানীয়রা বলেন, ঢাকার সঙ্গে রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা চালু হলে ব্যবসা বাণিজ্যের অনেক প্রসার ঘটবে। সেসাথে ভারত-বাংলাদেশ পাসপোর্ট যাত্রী যাতায়াতেরও ব্যাপক সুবিধা হবে। প্রতিদিন দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে প্রায় সাত হাজার পাসপোর্টযাত্রী যাতায়াত করে থাকে। যার সিংহভাগ আসে ঢাকা থেকে। বেনাপোল থেকে পরিবহন সংকট, দৌলতদিয়া পাটুরিয়া ফেরিঘাটে যানজটের কারণে যাত্রীরা নানামুখি হয়রানির শিকার হয়। রেল চালু হওয়ায় সেই হয়রানি লাঘব হবে।

এদিকে, রেলটির নাম এখনও নির্ধারণ না হওয়ায় বেনাপোলবাসী রেলটির নাম বেনাপোল এক্সপ্রেস দেওয়ার দাবি করেছেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পূলক কুমার মন্ডল, বেনাপোল পোর্ট থানার অফিসার ইনচার্য(ওসি) শেখ আবু সালেহ মাসুদ করিম, পৌর আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলহাজ¦ এনামুল হক মুকুল, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ¦ নাসির উদ্দিন, শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক ও যশোর জেলা পরিষদের সদস্য অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল, বেনাপোল ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব বজলুর রহমান, বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্ট এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মফিজুর রহমান সজন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুর রহিম সরদার, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন রাসেল, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জুলফিক্কার আলী মন্টু, বাস্তহারালীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী, ছাত্র নেতা আল ইমরান হোসেন, রুবেলসহ স্থানীয় আওয়ামীলীগের সকল সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা।

বাংলাদেশ রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের প্রধান পরিবহন তত্ত্বাবধায়ক শাহনেওয়াজ বলেন, ‘পরীক্ষামূলকভাবে ট্রেনটি ইতিমধ্যে চালানো হয়েছে। আশা করছি, আগামী কোরবানির ঈদের আগেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ট্রেনটির উদ্বোধন ঘোষণা করবেন।’

বেনাপোল রেলওয়ে স্টেশন সূত্রে জানা গেছে, বেনাপোল-ঢাকা ট্রেনে আধুনিক সুযোগ-সুবিধা থাকবে। এই ট্রেনে বিমানের মতো বায়ো-টয়লেট সুবিধা রয়েছে। আসনগুলোও আধুনিক। প্রতিদিন বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ট্রেনটি বেনাপোল থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যাবে। আবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা থেকে বেনাপোলের উদ্দেশে ছেড়ে আসবে। সকাল আটটার মধ্যে ট্রেনটি বেনাপোল বন্দরে পৌঁছে যাবে। যাতে ভারতগামী যাত্রীরা সকাল ৯টার মধ্যে বেনাপোল ইমিগ্রেশনে পৌঁছাতে পারে। বেনাপোল থেকে ট্রেনটি ছেড়ে যশোর রেলওয়ে জংশনে পৌঁছে ১৫ মিনিটের বিরতি নেবে। এ সময়ের মধ্যে যাত্রী ওঠানো ও রেলের ইঞ্জিন ঢাকামুখী ঘোরানো হবে। এরপর ঈশ্বরদী গিয়ে ট্রেনের চালকসহ অপারেশনাল কর্মী বদলের জন্য আরও ১৫ মিনিটের বিরতি থাকবে। পরে ট্রেনটি ঢাকা কমলাপুর স্টেশনের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে। তবে, এর আগে ঢাকা বিমানবন্দর স্টেশনে কিছুক্ষণের জন্য ট্রেনটি থামানো হবে।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

অফিস ॥ ৯২ আরামবাগ, ক্লাব মার্কেট, মতিঝিল। ই-মেইল ॥ banglaonlinetvnews@gmail.com
প্রকাশক মোঃ রাসেল জাতীয় মানবাধিকার ইউনিটি রেজিঃ নং: ঢ_০৮৮৩৭
অনলাইন নিতীমালা মেনে আবেদন কৃত সম্পাদক॥ রাজু আহমেদ অনুমোদিত নাম্বার ০৫/৯৩১৭০২৬৫